ঢাকা টু ভাঙ্গা ট্রেনের সময়সূচী ও ভাড়া

প্রিয় পাঠক, আপনি কি ঢাকা টু ভাঙ্গা ট্রেনের সময়সূচী ও ভাড়া অনলাইনে খোঁজাখুঁজি করছেন? তাহলে আজকের আর্টিকেলটি আপনার জন্য। আজকের আর্টিকেলে আলোচনা করব ঢাকা টু ভাঙ্গা ট্রেনের সময়সূচী ও ভাড়া সম্পর্কে আপডেট সকল তথ্য।
ঢাকা টু ভাঙ্গা ট্রেনের সময়সূচী ও ভাড়া
১০ অক্টোবর পদ্মা সেতু উদ্বোধনের মাধ্যমে নতুন একটি রেল পথ চালু হয়। এর ফলে ঢাকা থেকে ভাঙ্গা সহজে যাতায়াত সম্ভব হয়েছে। তাই আপনাদের সহায়তার জন্য আজকের আর্টিকেলে ঢাকা টু ভাঙ্গা ট্রেনের সময়সূচী ও ভাড়া সম্পর্কে যাবতীয় তথ্য আলোচনা করব।

পেজ সূচিপত্রঃ ঢাকা টু ভাঙ্গা ট্রেনের সময়সূচী ও ভাড়া

ভূমিকা

দেশের সবচেয়ে চমৎকার এবং আধুনিক রেলওয়ে এখন ঢাকা-ভাঙ্গা রেলওয়ে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঢাকা থেকে ভাঙ্গা পর্যন্ত ৮২ কিলোমিটার রেলওয়ে উদ্বোধন করলেন। অনুষ্ঠানের শেষে, প্রধানমন্ত্রী নিজেই নতুন রেলওয়ে দিয়ে পদ্মা সেতু করে ফরিদপুরের ভাঙ্গা রেলওয়ে স্টেশনে পৌঁছান। বলা হয়, এই রেলওয়ে উদ্বোধনের মাধ্যমে পদ্মা সেতুতে যাত্রীদের পূর্ণ অভিবাদন হয়েছে।
এই রেলওয়ে নির্মাণের ফলে ঢাকা থেকে খুলনা পর্যন্ত যাত্রার দূরত্ব ২১৫ কিলোমিটার কমে যাবে। বর্তমানে পশ্চিমাঞ্চল রেলে ঢাকা থেকে খুলনা পর্যন্ত ১০-১২ ঘণ্টা সময় নিতে হয়, কিন্তু নতুন এই রেলওয়েতে মাত্র ৩ ঘণ্টায় যশোরে এবং ৪ ঘণ্টায় খুলনা পৌঁছানো যাবে।

ঢাকা টু ভাঙ্গা ট্রেন সম্পর্কে সংক্ষেপে

সাম্প্রতিকভাবে, বাংলাদেশ রেলওয়ে পদ্মা সেতু রেল সংযোগ প্রকল্পের সীমানায় একটি গুরুত্বপূর্ণ উন্নতি হয়েছে, যা ঢাকা থেকে ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলা পর্যন্ত নতুন রেললাইনের নির্মাণ করেছে। এই নতুন রেললাইনের দৈর্ঘ্য ৮২ কিলোমিটার। মোটমুল্যে, ঢাকা থেকে ভাঙ্গা পর্যন্তে পৌঁছাতে সময় কমানো হয়েছে, কারণ এই দুরত্বটি এখন ৮২ কিলোমিটার।
এই নতুন রেললাইন উদ্বোধন করা হয়েছে গত ১০ অক্টোবরে, যখন দেশের প্রধানমন্ত্রী এই গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্পটি উদ্বোধন করেন। এই উন্নতির ফলে ঢাকা থেকে ভাঙ্গা সহজেই যাতায়াত করতে পারবেন। যাত্রীদের জন্য ট্রেনের সময়সূচি এবং ভাড়ার বিষয়ে জরুরী তথ্য প্রদান করতে এই আর্টিকেলটি সহায়তা করবে।

ঢাকা টু ভাঙ্গা ট্রেনের সময়সূচী ও ভাড়া

চীন থেকে কেনা নতুন সাতটি কোচের সমন্বয়ে একটি বিশেষ ট্রেন তৈরি করা হয়েছে ঢাকা টু ভাঙ্গা রুটে চলাচলের জন্য। এটি প্রথম দিকে চলাচল করবে না, এর পরিবর্তে পুরনো ট্রেনগুলি ব্যবহার করা হবে।২০২৪ সালে নতুন ট্রেন ব্যবহার করা হবে। ঢাকা টু ভাঙ্গা ট্রেনের সময়সূচী ও ভাড়া সম্পর্কে নিচে আলোচনা করা হলো।
ঢাকা থেকে ভাঙ্গা হয়ে মোট তিনটি ট্রেন চলাচল করে থাকে। ঢাকা থেকে পদ্মা সেতু দিয়ে ভাঙ্গা হয়ে রাজশাহী, খুলনা ও বেনাপোলের উদ্দেশ্যে ট্রেনগুলো ছেড়ে যায়। ট্রেনগুলো হলঃ
  • বেনাপোল এক্সপ্রেস
  • সুন্দরবন এক্সপ্রেস
  • মধুমতি এক্সপ্রেস
ঢাকা টু ভাঙ্গা ট্রেনের সময়সূচী
বাংলাদেশ রেলওয়ের দেওয়া সময়সূচি অনুযায়ী, ঢাকা থেকে ভাঙ্গা ট্রেনের সময় ও সপ্তাহিক বন্ধের তথ্য নিম্নে দেওয়া হলোঃ
সুন্দরবন এক্সপ্রেস (৭২৬)
  • সাপ্তাহিক বন্ধের দিনঃ বুধবার
  • ঢাকা হতে ছাড়ার সময়ঃ সকাল ৮ঃ১৫ মিনিট
  • ভাঙ্গা পৌঁছানোর সময়ঃ সকাল ৯ঃ২৯ মিনিট
মধুমতি এক্সপ্রেস (৭৫৫)
  • সাপ্তাহিক বন্ধের দিনঃ বৃহস্পতিবার
  • ঢাকা হতে ছাড়ার সময়ঃ দুপুর ৩ঃ০০ মিনিট
  • ভাঙ্গা পৌঁছানোর সময়ঃ বিকাল ৪ঃ৩৪ মিনিট
বেনাপোল এক্সপ্রেস (৭৯৬)
  • সাপ্তাহিক বন্ধের দিনঃ বুধবার
  • ঢাকা হতে ছাড়ার সময়ঃ রাত ১১ঃ৪৫ মিনিট
  • ভাঙ্গা পৌঁছানোর সময়ঃ রাত ১২ঃ৫২ মিনিট
এই সময়সূচিতে যে ট্রেনগুলি উল্লেখিত, তাদের চলাচলের তথ্যের মূল উৎস হতে রেলওয়ে অফিশিয়াল সূত্র বা অনলাইন সেবাগুলি বা স্থানীয় স্টেশনের প্যানেল থাকতে পারে। ভাড়া এবং অন্যান্য বিশেষ তথ্যের জন্য রেলওয়ে কর্তৃপক্ষে যোগাযোগ করতে পারেন।

ঢাকা টু ভাঙ্গা ট্রেনের ভাড়া
বাংলাদেশ রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ নিজের নির্ধারণ করেছে, ঢাকা থেকে ভাঙ্গা পর্যন্ত ট্রেনের ভাড়া। ঢাকা থেকে ভাঙ্গার দূরত্ব হলো ৭৭ কিলোমিটার, তবে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ ৩৫৯ কিলোমিটার থেকে ৩৬৪ কিলোমিটার ধরে ভাড়া নির্ধারণ করেছে।

এর মাধ্যমে পদ্মা সেতুর জন্য পন্টেজ চার্জ এবং ১৫ শতাংশ ভ্যাট যোগ করা হচ্ছে। এটির ফলে ট্রেনের ভাড়া বাসের তুলনায় বেশি হবে।

চার শ্রেণীর আসনের মূল্য নিম্নলিখিত
  • শোভন চেয়ারঃ ৩৫৫ টাকা
  • স্নিগ্ধাঃ ৬৭৮ টাকা
  • এসি সিটঃ ৮১৭ টাকা
  • এসি বার্থঃ ১২১৯ টাকা
ট্রেনের সময়সূচি এবং ভাড়া সম্পর্কে সম্পূর্ণ এবং সর্বশেষ তথ্যের জন্য অফিশিয়াল রেলওয়ে ওয়েবসাইট অথবা ট্রেনের স্থানীয় স্টেশনে যোগাযোগ করতে পারেন।

ঢাকা টু ভাঙ্গা ট্রেনের বিরত স্টেশন সমূহ

ট্রেন ভ্রমণের ক্ষেত্রে যাত্রীকে অবশ্যই বিরতি স্টেশন সম্পর্কে জানা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। নিচেঢাকা টু ভাঙ্গা ট্রেনের বিরত স্টেশন সমূহ দেয়া হলঃ
সুন্দরবন এক্সপ্রেসঃ ঢাকা টু ভাঙ্গা এর মধ্যে কোন বিরতি স্থান নাই।

মধুমতি এক্সপ্রেসঃ ঢাকা থেকে যাত্রা করে মাওয়া , পদ্মা এবং শিবচর হয়ে ভাঙ্গা পৌছায়।

বেনাপোল এক্সপ্রেসঃ ঢাকা থেকে যাত্রা করে সরাসরি ভাঙ্গা পৌছায়। মাঝে কোন বিরতি স্থল নেই।

ট্রেনে ভ্রমণের প্রয়োজনীয় তথ্যের জন্য রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ ও স্থানীয় স্টেশন অফিস সহায়ক হতে পারে।

ঢাকা টু ভাঙ্গা ট্রেনের ছুটির দিন সমূহ

ঢাকা টু ভাঙ্গা রুটে চলা ট্রেনের সবগুলি ছুটির দিন সমূহ নিম্নে দেওয়া হলোঃ
  • সুন্দরবন এক্সপ্রেসঃবুধবার
  • মধুমতি এক্সপ্রেসঃবৃহস্পতিবার
  • বেনাপোল এক্সপ্রেসঃবুধবার
উল্লেখযোগ্য যে, এই তথ্যগুলি সমূহ তারিখ পরিবর্তনের সম্ভাবনা রয়েছে, এবং রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ সাপ্তাহিক বন্ধের দিন বা আপেক্ষিক অবস্থা পরিবর্তন করতে পারে। তাই, ট্রেনের ছুটির দিনের জন্য সর্বাধিক নতুন এবং নির্মিত তথ্যের জন্য রেলওয়ে কর্তৃপক্ষের অফিশিয়াল ওয়েবসাইট বা স্থানীয় স্টেশনের প্যানেল দেখার জন্য যোগাযোগ করা গুরুত্বপূর্ণ।

আজকের আর্টিকেলে সচরাচর প্রশ্ন

প্রশ্নঃ ঢাকা টু ভাঙ্গা রেলপথ কত কিলোমিটার?
উত্তরঃ ঢাকা থেকে ভাঙ্গা পর্যন্ত রেলপথের মোট দূরত্ব ৭৭ কিলোমিটার।
প্রশ্নঃ রেলপথ মন্ত্রণালয় কতটি ট্রেন চলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ঢাকা টু ভাঙ্গা রুটে?
উত্তরঃ এই রুটে মন্ত্রণালয় তিনটি ট্রেন চলার সিদ্ধান্ত নেয়েছে।
প্রশ্নঃ ঢাকা টু ভাঙ্গা রুটে কতটি আন্তঃনগর ট্রেন চলবে?
উত্তরঃ ঢাকা টু ভাঙ্গা রুটে দুইটি আন্তঃনগর ট্রেন চলবে।
প্রশ্নঃ কোন ২টি আন্তঃনগর ট্রেন চলবে ঢাকা টু ভাঙ্গা রুটে?
উত্তরঃ ঢাকা টু ভাঙ্গা রুটে আন্তঃনগর মধুমতি এক্সপ্রেস এবং সুন্দরবন এক্সপ্রেস এই দুইটি ট্রেন চলবে।
প্রশ্নঃ শোভন চেয়ার টিকিটের ভাড়া কত?
উত্তরঃ ঢাকা টু ভাঙ্গা রুটের শোভন চেয়ার টিকিটের ভাড়া ৩৫০ টাকা।
প্রশ্নঃ এসি টিকিটের ভাড়া কত?
উত্তরঃ ঢাকা টু ভাঙ্গা রুটের এসি টিকিটের ভাড়া ৬৬৭ টাকা।

শেষ কথাঃ ঢাকা টু ভাঙ্গা ট্রেনের সময়সূচী ও ভাড়া

পরিশেষে বলতে চাই, আজকের আর্টিকেলে ঢাকা টু ভাঙ্গা ট্রেনের সময়সূচী ও ভাড়া নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে। আজকের আর্টিকেলের সম্পূর্ণ তথ্য বাংলাদেশ রেলওয়ের তথ্য অনুসারে দেয়া হয়েছে। আশা করি আজকের আর্টিকেলটি আপনাদের নিরাপদ ভ্রমণে সহায়তা করবে।

আজকের আর্টিকেলটি সম্পর্কে আপনাদের যদি কোন প্রশ্ন বা মতামত থাকলে কমেন্টের মাধ্যমে জানাবেন। আমরা আপনাদের প্রশ্নের যথাযথ উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করব। আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

অর্ডিনারি আইটির নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url