পাবনা টু ঢাকা ট্রেনের সময়সূচী

আপনি কি পাব পাবনা টু ঢাকা টেন জার্নি করবেন ভাবছেন। তাহলে আপনি সঠিক জায়গায় এসেছেন কেননা এই আর্টিকেলে আপনি জানতে পারবেন পাবনা টু ঢাকা ট্রেনের সময়সূচী। অনেকে বাসে চলাচল করতে স্বাচ্ছন্দ বোধ করেন না। পাবনা টু ঢাকা ট্রেনের সময়সূচী জেনে বিন্দাস চলাচল করুন।
পাবনা টু ঢাকা ট্রেনের সময়সূচী
এই আর্টিকেলটিতে আরো আলোচনা করা হয়েছে পাবনা টু ঢাকা ট্রেনের সময়সূচীর নতুন ট্রেন সমূহের স্টেশন বিরতি সম্পর্কে। 

পেজ সূচিপত্রঃ পাবনা টু ঢাকা ট্রেনের সময়সূচী

পাবনা টু ঢাকা কত কিলোমিটার

পাব অনেকের ট্রেনের চলাচল করার পূর্বে জানতে চান যে, ট্রেনটি তার গন্তব্য স্থানে পৌঁছাতে কত সময় লাগবে? এক্ষেত্রে আপনার জেনে থাকা প্রয়োজন গন্তব্য স্থানে দূরত্ব কতটুকু। তাহলে আপনি খুব সহজেই একটি সময় নির্ধারণ করতে পারবেন। তাহলে আপনার মনে যদি প্রশ্ন জেগে থাকে পাবনা টু ঢাকা যেতে আপনার কত সময় লাগবে?তাহলে আপনাকে অবশ্যই জানতে হবে পাবনা টু ঢাকা কত কিলোমিটার

চলুন আলোচনার এই পর্যায়ে জেনে নিন পাব না টু ঢাকা কত কিলোমিটার। পাবনা থেকে ঢাকার দূরত্ব মোট হচ্ছে ২০৮ কিলোমিটার। এক্ষেত্রে আপনি যদি ট্রেনের চলাচল করেন তাহলে এই দূরত্বটা কম বা বেশি হতে পারে। কারণ উল্লেখিত দূরত্ব টি হচ্ছে সড়ক পথের দূরত্ব।

পাবনা টু ঢাকা রুটের ট্রেন সমূহের এর নাম

ট্রেনে চলাচলের জন্য আপনার জন্য অতীব ও জানা জরুরী যে কোন ট্রেন কোন রুটে চলাচল করে। যদি আপনি ট্রেনের রুট না জেনে থাকেন তাহলে আপনি ভুল গন্তব্যে পৌঁছাতে পারেন। তাহলে বন্ধুরা চলুন জেনে নিন পাবনা টু ঢাকা রুটের ট্রেন সমূহের নাম।
  • আন্তঃনগর পাবনা এক্সপ্রেস
  • সিরাজগঞ্জ এক্সপ্রেস ৭৭৬
  • সুন্দরবন এক্সপ্রেস ৭২৬ 
  • চিতা এক্সপ্রেস ৭৬৪
এ তিনটি ট্রেন পাবনা টু ঢাকা রুটে প্রতিনিয়ত সময়সূচি অনুসারে চলাচল করছে। আরও বিভিন্ন লোকাল ট্রেনগুলো চলাচল করে যার মাধ্যমে যদি আপনি ভ্রমণ করতে চান তাহলে দেখা যাবে এই এক্সপ্রেস ট্রেন গুলোর চাইতে আপনাকে অধিক সময় ব্যয় করতে হবে গন্তব্য স্থানে পৌঁছাতে।

পাবনা টু ঢাকা ট্রেনের সময়সূচী

পা পাবনা টু ঢাকা রুটের নতুন সময়সূচী প্রকাশ করেছে। চলুন বন্ধুরা আলোচনার এ পর্যায়ে জেনে পাবনা টু ঢাকা ট্রেনের সময়সূচী। উপরে আলোচিত সিরাজগঞ্জ এক্সপ্রেস সুন্দর এক্সপ্রেস চিতা এক্সপ্রেস ইত্যাদি ট্রেনগুলো ঢাকা থেকে পাবনা সরাসরি চলাচল করে। কিন্তু ঢাকা এ সরাসরি ট্রেন নেই।

রিসেন্টলি শুধুমাত্র একটি ট্রেন যার নাম অন্তনগর পাবনা এক্সপ্রেস এর সময়সূচি নির্ধারণ করা হয়েছে সরাসরি পাবনা টু ঢাকা যাওয়ার জন্য। এই অন্তনগর পাবনা এক্সপ্রেস ট্রেনটি সকাল আটটার সময় রওনা দেবে। আন্তঃনগর পাবনা এক্সপ্রেস ট্রেনটি সকাল আটটায় যাত্রা শুরু করে।

বিভিন্ন স্থানে যাত্রা বিরতি দিয়ে এটি ঢাকায় পৌঁছাবে দুপুর একটা সাতাশ মিনিটে। এবং এই তথ্যটি পাওয়া গিয়েছে বাংলাদেশ রেলওয়ের ওয়েবসাইট থেকে। চলুন এবার জেনে নেওয়া যাক যাত্রাপথে কোন স্টেশনে কতক্ষণ ট্রেনটি বিরতি নিবে এবং কয়টায় ছাড়বে।

পাবনা টু ঢাকা ট্রেনের বিরতি স্টেশন সমূহ

পাবনা টু ঢাকা যাওয়ার জন্য যে আন্তঃনগর পাবনা এক্সপ্রেস ট্রেনটি যাবে সেটি ঈশ্বরদী হয়ে সরাসরি ঢাকা পৌঁছাবেন। এছাড়া এই ট্রেনটি সরাসরি পাবনা থেকে ঢাকা পৌঁছাবে না বেশ কয়েকটি স্টেশনের থেমে এরপর সেটি ঢাকায় পৌঁছাবে তাহলে চলুন জেনে নিয়ে কোন স্টেশনে থামবে এবং সেই স্টেশন থেকে ছাড়ার সময় কত।
  • সর্বপ্রথম যে স্টেশন থেকে ছাড়বে সেটি হচ্ছে পাবনা স্টেশন যা সকাল আটটায় ছাড়বে
  • দ্বিতীয় স্টেশন হিসেবে টেবু নিয়ে থামবে ৮টা ১০ মিনিট এবং সেখান থেকে ট্রেনটি ছাড়বে ৮টা ১২ মিনিটে
  • তৃতীয়স্টেশন হিসেবে এই ট্রেনটি দাঁড়াবে দাশুড়িয়া ঠিক আটটা বাইশ মিনিটে এবং সেই স্টেশন থেকে ট্রেনটি ছেড়ে যাবে ৮:৫০ মিনিটে।
  • চতুর্থ স্টেশন ঈশ্বরদীতে থামবে ৮:৪৫ মিনিটে এবং সেখান থেকে ট্রেনটি ছাড়ার সময় হচ্ছে ৯:৫ মিনিটে
  • পঞ্চম স্টেশন মাঝগ্রাম ৯ঃ১৫ মিনিটে প্রবেশ করবে এবং দুই মিনিট বিরতি নিয়ে এটি 9 টা সতেরো মিনিটে ছেড়ে যাবে।
  • ষষ্ঠ স্টেশন চাটমোহর এ ৯ঃ১৫ মিনিটে প্রবেশ করবে এবং ছেড়ে যাবে ৯:৩৬ মিনিটে।
  • সপ্তম স্টেশন বড়াল ব্রিজ ঠিক ১০ঃ০০ থামবে এবং ছাড়বে ১০ঃ৩ মিনিটে।
  • অষ্টম স্টেশন উল্লাপাড়ায় প্রবেশ করবে ১০:৩৪ মিনিটে এবং ছেড়ে যাবে ১০:৩৮ মিনিটে
  • নবম স্টেশন এস এইচ এম মনসুর আলী তে প্রবেশ করবে ১০:৫৪ মিনিটে এবং ছেড়ে যাবে ১০:৫৭ মিনিটে
  • দশম স্টেশন টাঙ্গাইলে প্রবেশ করবে ১১:৫৬ মিনিটে এবং সেখান থেকে ট্রেনটি ছেড়ে যাবে ১২:৩ মিনিটে
  • সর্বশেষ সর্বশেষ স্টেশন বিমানবন্দরে ১:২৪ মিনিটে প্রবেশ করে সেখান থেকে ট্রেনটি ছেড়ে যাবে ১:২৭ মিনিটে
এই ছিল পাবনা টু ঢাকা ট্রেনের বিরতি স্টেশন সমূহ। এবং বর্তমানে সময়সূচী টি নির্ধারণ করেছে বাংলাদেশ রেলওয়ে।

শেষ কথাঃ পাবনা টু ঢাকা ট্রেনের সময়সূচী

প্রিয় বন্ধুরা আজকের আর্টিকেলের মাধ্যমে আলোচনা করার চেষ্টা করলাম পাবনা টু ঢাকা ট্রেনের সময়সূচির সম্পর্কিত সকল বিষয়। আর্টিকেল টু পরে আপনার মূল্যবান মতামতটি কমেন্ট বক্সের মাধ্যমে আমাদেরকে জানান।

আপনি আপনার বন্ধু বান্ধবের কাছে আমাদের এই আর্টিকেল পৌঁছে দিন ট্রেন জার্নি করুন নিরাপদ থাকুন ধন্যবাদ। কক্সবাজারের প্ল্যান পাঁচ বছর ধরে করলেই হতো না।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

অর্ডিনারি আইটির নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url