চাঁপাইনবাবগঞ্জ টু রাজশাহী নতুন ট্রেনের সময়সূচী ও ভাড়ার তালিকা

প্রিয় পাঠক, আপনি কিচাঁপাইনবাবগঞ্জ টু রাজশাহী নতুন ট্রেনের সময়সূচী ও ভাড়ার তালিকা সম্পর্কে জানতে চাইছেন? তাহলে আজকের আর্টিকেলটি আপনার জন্য অধিক প্রয়োজনীয়। আজকের আর্টিকেলে আলোচনা করবচাঁপাইনবাবগঞ্জ টু রাজশাহী নতুন ট্রেনের সময়সূচী ও ভাড়ার তালিকাসহ যাবতীয় সকল তথ্য।
চাঁপাইনবাবগঞ্জ টু রাজশাহী নতুন ট্রেনের সময়সূচী ও ভাড়ার তালিকা
চাঁপাইনবাবগঞ্জ শহরের মূলকেন্দ্রে অবস্থিত চাঁপাইনবাবগঞ্জ রেলস্টেশন। চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে রাজশাহী হয়ে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে ট্রেন ভ্রমণ করা সম্ভব। আজকের আলোচনায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ টু রাজশাহী নতুন ট্রেনের সময়সূচী ও ভাড়ার তালিকা নিয়ে জানাবো।

পেজ সূচিপত্রঃ চাঁপাইনবাবগঞ্জ টু রাজশাহী নতুন ট্রেনের সময়সূচী ও ভাড়ার তালিকা

ভূমিকা

চাঁপাইনবাবগঞ্জ রেলওয়ে স্টেশন বাংলাদেশের রাজশাহী বিভাগের চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার একটি রেলওয়ে স্টেশন। এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ রেলওয়ে হাব হিসেবে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার মাধ্যমে সম্পর্কিত শহরগুলির সাথে যোগাযোগ করে। রাজশাহী থেকে চাঁপাইনবাবগঞ্জ যাত্রা করতে ইচ্ছুক যাত্রীদের জন্য ছয়টি ট্রেনের সময়সূচী রয়েছে।
এই ট্রেনগুলি চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা হতে শুরু করে রাজশাহী শহরে যাত্রা করে এবং যাত্রা করার জন্য সহায়ক একটি বিকল্প প্রদান করে। আজকের আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে পড়লে চাঁপাইনবাবগঞ্জ টু রাজশাহী নতুন ট্রেনের সময়সূচী ও ভাড়ার তালিকা সম্পর্কে জানতে পারবেন।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ টু রাজশাহী নতুন ট্রেন সম্পর্কে সংক্ষেপে

বাংলাদেশে, চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে রাজশাহীতে যাত্রা করার জন্য একটি নতুন ট্রেন চালু হয়েছে। এই ট্রেনটি প্রয়োজনে চাঁপাইনবাবগঞ্জ ও রাজশাহী মধ্যে মাঝামাঝি সংযোগ সৃষ্টি করে দেয়, যাত্রীদের জন্য একটি সহজ এবং দ্রুত যাতায়াতের মাধ্যম হয়ে দাঁড়ায়। পাবনা-রাজশাহী রুটে চলাচলকারী ঢালারচর এক্সপ্রেস ট্রেন প্রথমবারের মতো চাঁপাইনবাবগঞ্জ পর্যন্ত যাত্রা করেছে।

শনিবার (১ ডিসেম্বর) দুপুর ১২টা ৩৫ মিনিটে ট্রেনটি চাঁপাইনবাবগঞ্জ রেলস্টেশনে পৌঁছায়। চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে রাজশাহী রুটে নতুন ট্রেন সংযোজিত হওয়ায় চাঁপাইনবাবগঞ্জবাসি অনেক আনন্দিত হয়েছে। চাঁপাইনবাবগঞ্জ টু রাজশাহী ভ্রমণের ক্ষেত্রে নতুন সময়সূচী তৈরি হয়েছে। আজকে আমরা নতুন সময়সূচি এবং ভাড়ার বিষয়ে আলোচনা করবো।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ টু রাজশাহী নতুন ট্রেনের সময়সূচী ও ভাড়ার তালিকা

চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে রাজশাহী পর্যন্ত ট্রেনের দূরত্ব ৫৪ কিলোমিটার। চাঁপাইনবাবগঞ্জ রেলস্টেশন থেকে অনেকগুলো ট্রেন যাতায়াত করে। এর মধ্যে ছয়টি ট্রেন চাপাইনবাবগঞ্জ থেকে রাজশাহী যাতায়াত করে। চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে রাজশাহী পৌঁছতে ট্রেনগুলো কত সময় লাগে তা নিচে দেওয়া হল।
  • আন্তঃনগর বনলতা এক্সপ্রেসঃ ৫০ মিনিট সময় নিয়ে চলে।
  • ঢালার চর এক্সপ্রেসঃ ১ ঘন্টা ১৫ মিনিট সময় নিয়ে চলে।
  • মেইল ট্রেনঃ ১ ঘন্টা ৪৫ মিনিট সময় নিয়ে চলে।
  • শাটল ট্রেনঃ ১ ঘন্টা ৪০ মিনিট সময় নিয়ে চলে।
  • লোকাল ট্রেনঃ ২ ঘন্টা সময় নিয়ে চলে।
চাঁপাইনবাবগঞ্জ টু রাজশাহী নতুন ট্রেনের সময়সূচী
চাঁপাইনবাবগঞ্জ টু রাজশাহী ২ টি আন্তঃনগর , ২টি মেইল ট্রেন , ২ টি শাটল ট্রেন , এবং একটি লোকাল ট্রেন চলাচল করে।

বনলতা এক্সপ্রেসঃ চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে সকাল ৬ঃ০০ মিনিটে ছাড়ার সময় এবং রাজশাহীতে সকাল ৬ঃ৫০ মিনিটে পৌঁছে। গন্তব্য ঢাকায় পৌঁছে সন্ধ্যা ৭ঃ৩০ মিনিটে।
ঢালার চর এক্সপ্রেসঃ চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে বিকাল ৩ঃ৩০ মিনিট ছাড়ার সময় এবং রাজশাহীতে পৌঁছায় বিকাল ৪ঃ৪৫ মিনিটে

রাজশাহী এক্সপ্রেসঃ চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে সকাল ৮ঃ৩০ মিনিটে ছাড়ার সময় এবং রাজশাহীতে সকাল ১০ঃ০৫ মিনিটে পৌঁছে।

শাটল ২ঃ চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে দুপুর ২ঃ২০ মিনিটে ছাড়ার সময় এবং রাজশাহীতে দুপুর ৩ঃ৪০ মিনিটে পৌঁছে।

শাটল ৪ঃ চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে রাত ৯ঃ৪৫ মিনিটে ছাড়ার সময় এবং রাজশাহীতে রাত ১০ঃ৫৫ মিনিটে পৌঁছে।

লোকালঃ চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে সকাল ১০ঃ১০ মিনিটে ছাড়ার সময় এবং রাজশাহীতে বিকাল দুপুর ১১ঃ৪৫ মিনিটে পৌঁছে।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ টু রাজশাহী নতুন ট্রেনের ভাড়া
চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে রাজশাহী ট্রেনের টিকেট মূল্য কোম্পার্টমেন্ট এবং আপনার যাত্রার স্থানের ধরণের উপর নির্ভর করে। এক্ষেত্রে সময়সূচি, সুবিধা, এবং ক্লাস ভিত্তিক ভাড়া হয়ে থাকে। একটি সাধারণ ক্লাস বা শাটল ট্রেনের টিকেট মূল্য কম হতে পারে, যেখানে ইন্টারসিটি ট্রেনে কোম্পার্টমেন্টে এবং ফার্স্ট ক্লাসে বেশি ভাড়া প্রযোজ্য হতে পারে। তবুও এখানে সর্বনিম্ন থেকে সর্বোচ্চ ভাড়া দেয়া হলো।
  • শোভনঃ ১৬ টাকা
  • মেইল শোভনঃ ২৫ টাকা
  • কমিউটারঃ ৭৫ টাকা
  • শোভন চেয়ারঃ ১০০ টাকা
  • স্নিগ্ধা ঃ ১৩৫ টাকা
  • এসি সিটঃ ১৬০ টাকা
ট্রেনের ধরনের উপর ভিত্তি করে ভাড়া বিভিন্ন ধরনের হতে পারে। আন্তঃনগর ট্রেন ছাড়া লোকাল এবং কমিউটার ট্রেনগুলোর টিকেট অনলাইন থেকে সংগ্রহ করা যায় না। সেগুলো স্থানীয় রেলওয়ে স্টেশন থেকে ভ্রমণের পূর্বে সংগ্রহ করতে হয়। টিকেট মূল্য সম্পর্কে নতুন তথ্য এবং সময়সূচি জানতে, স্থানীয় রেলওয়ে স্টেশন বা অনলাইন টিকেট বুকিং সাইট দেখুন।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ টু রাজশাহী নতুন ট্রেনের বিরত স্টেশন সমূহ

অনেকেই ভ্রমণের সময়ে এমন প্রশ্ন করে যে, চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে রাজশাহী ট্রেন রেলপথে যাত্রার ক্ষেত্রে ট্রেন কোন কোন স্থানে বিরতি দেয়। তাই আপনাদের জানাবো চাঁপাইনবাবগঞ্জ টু রাজশাহী নতুন ট্রেনের বিরত স্টেশন সমূহ। চাঁপাইনবাবগঞ্জ টু রাজশাহী নতুন ট্রেনের বিরত স্টেশন সমূহ নিম্নলিখিতঃ
  • আমনুরা বাইপাস
  • ললিত নগর
  • কাকনহাট
  • শীতলাই
  • রাজশাহী কোর্ট
  • রাজশাহী
এই স্টেশনগুলি চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে রাজশাহী যাত্রা করতে ব্যবহৃত হয়। আন্তঃনগর ট্রেনের ক্ষেত্রে চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে রাজশাহীর মধ্যে কোন বিরতি স্টেশন নাই। সেগুলি সরাসরি চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে রাজশাহী পৌছায়।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ টু রাজশাহী নতুন ট্রেনের ছুটির দিন সমূহ

চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে রাজশাহী ট্রেন ভ্রমণের ক্ষেত্রে ছুটির দিন সম্পর্কে জানা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।চাঁপাইনবাবগঞ্জ টু রাজশাহী নতুন ট্রেনের ছুটির দিন সমূহ নিচে দেওয়া হল।
বনলতা এক্সপ্রেস (৭৯২)
  • বন্ধের দিনঃ শুক্রবার
ঢালার চর এক্সপ্রেস (৭৮০)
  • বন্ধের দিনঃ শুক্রবার
রাজশাহী এক্সপ্রেস (৬)
  • বন্ধের দিনঃ নাই
শাটল ২
  • বন্ধের দিনঃ নাই
শাটল ৪
  • বন্ধের দিনঃ নাই
লোকাল (৫৬৬)
  • বন্ধের দিনঃ নাই
এই ছুটির দিনগুলি চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে রাজশাহী নতুন ট্রেনের জন্য প্রযোজ্য। তবে, এই ছুটির দিনে বদলানোর সম্ভাবনা রয়েছে, এটি স্থানীয় রেলওয়ে অফিস বা অনলাইন সূত্রে যাচাই করতে ভুলবেন না।

আজকের আর্টিকেলে সচরাচর প্রশ্ন

প্রশ্নঃ ট্রেনে যাত্রা করার জন্য টিকিট কোথা থেকে কিভাবে কিনতে হয়?
উত্তরঃ ট্রেনে যাত্রা করার জন্য টিকিট আপনি স্থানীয় ট্রেন স্টেশন, অনলাইনের রেলওয়ে সাইট, মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন অথবা অন্যান্য অনলাইন বিক্রয়কর্তাদের মাধ্যমে কিনতে পারেন।
প্রশ্নঃ ট্রেনে কি ধরনের আসন বিকল্প রয়েছে, এবং তার মূল্য কত?
উত্তরঃ ট্রেনে বিভিন্ন ধরনের আসন বিকল্প থাকতে পারে, যেমনঃ শোভন, শোভন চেয়ার, মেইল শোভন , কমিউটার , স্নিগ্ধা , এসি সিট ইত্যাদি। প্রতি ধরনের আসনের মূল্য ভিন্ন হতে পারে, যা স্থানীয় স্টেশন অথবা অনলাইনে প্রাপ্ত করা যায়।
প্রশ্নঃ ট্রেনে যাত্রা করতে সাহায্যের জন্য কোন স্টেশন প্রধান হতে পারে?
উত্তরঃ ট্রেনে যাত্রা করতে সাহায্যের জন্য চাঁপাইনবাবগঞ্জ এবং রাজশাহী ট্রেন স্টেশন দুইটি প্রধান স্টেশন হতে পারে, যেখান থেকে যাত্রীদের সহায়তা প্রদান করতে পারে।
প্রশ্নঃ ট্রেনের ধরণ কী, উদাহরণস্বরূপ ইন্টারসিটি, মেইল, শাটল, লোকাল?
উত্তরঃ চাঁপাইনবাবগঞ্জ টু রাজশাহী রুটে ইন্টারসিটি, মেইল, শাটল, লোকাল ধরনের ট্রেন চলছে। ইন্টারসিটি ট্রেন সহজে বেশি দূরের স্থানে পৌঁছে দেয়, মেইল ট্রেন একদম একটি সাধারিত সার্ভিস, শাটল ট্রেন কিছুটা দূরে এবং প্রাথমিক স্থানে বিমান পরিবহন সার্ভিস, এবং লোকাল ট্রেন স্থানীয় ভ্রমণের জন্য একটি সহজ সুবিধা।
প্রশ্নঃ ট্রেনে ভ্রমণের সময়, কোথায় বিরতি প্রদান হয়?
উত্তরঃ ট্রেনে ভ্রমণে সময় এবং বিরতি প্রদানের জন্য প্রতিটি স্টেশনে একটি নির্দিষ্ট সময়সূচি থাকে। যাত্রীদের প্রয়োজনীয় তথ্য জানতে ট্রেনের সময়সূচি ও বিরতি স্থানে একটি স্টপ পোস্ট বা স্টেশন করে চেক করুন।

শেষ কথাঃ চাঁপাইনবাবগঞ্জ টু রাজশাহী নতুন ট্রেনের সময়সূচী ও ভাড়ার তালিকা

আজকের আর্টিকেলে চাঁপাইনবাবগঞ্জ টু রাজশাহী নতুন ট্রেনের সময়সূচী ও ভাড়ার তালিকা সম্পর্কে আলোচনা করা হয়েছে। আপনি যদি আর্টিকেলটি পড়ে না থাকেন তাহলে পুনরায় মনোযোগ সহকারে পড়ুন। তাহলে চাঁপাইনবাবগঞ্জ টু রাজশাহী নতুন ট্রেনের সময়সূচী ও ভাড়ার তালিকা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারবেন।
আশা করি আজকের আর্টিকেলটি আপনাদের চাঁপাইনবাবগঞ্জ টু রাজশাহী নিরাপদ ভ্রমণে সাহায্য করবে। আজকের আর্টিকেলটি সম্পর্কে আপনাদের মূল্যবান মতামত কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে ভুলবেন না। সবার সুস্বাস্থ্য ও নিরাপদ ভ্রমন কামনা করি। ধন্যবাদ ভালো থাকবেন।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

অর্ডিনারি আইটির নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url