পা ফাটা দূর করার ঘরোয়া উপায়

বাজারে পা ফাটা দূর করার জন্য বিভিন্ন ধরনের ক্রিম এবং ওষুধ পাওয়া যায় কিন্তু এগুলো ব্যয়বহুল হওয়ার কারণে আমরা এই আর্টিকেলে পা ফাটা দূর করার ঘরোয়া উপায় গুলো বিস্তারিত আলোচনা করব।পা ফাটা নিয়ে কষ্টে দিন না পার করে, পা ফাটা দূর করার ঘরোয়া উপায় গুলো জেনে নিন এবং সুস্থ থাকুন।
পা ফাটা দূর করার ঘরোয়া উপায়
পা ফাটা দূর করার ঘরোয়া উপায় এর পাশাপাশি আরো আপনি জানতে পারবেন শীতকালে আমাদের পা কেন বেশি ফাটে? এছাড়াও আপনি আরো জানতে পারবেন সারাবছর পা ফাটে কেন, ক্রিম ও ঔষধ।

পোস্ট সূচীপত্রঃ পা ফাটা দূর করার ঘরোয়া উপায়

পা ফাটা দূর করার ঘরোয়া উপায়

পা ফাটা দূর করার ঘরোয়া উপায়। যারা পা ফাটাই সমস্যায় ভুগছেন দীর্ঘদিন ধরে অথবা কিছুদিন ধরে যদি আপনি কোন ধরনের বিলম্ব না করতে না চান তাহলে আপনার পায়ের গোড়ালির একটু বেশি পরিচর্যা করতে হবে। বিশেষ করে শীতকালে বেশি পরিমাণে এই সমস্যাটি দেখা দেয়।
শুষ্ক মৌসুম এবং আদ্রতার হার থেকে আপনার গোড়ালিকে শেভ রাখতে চাইলে পা ফাটা দূর করার ঘরোয়া উপায়। যা জেনে আপনি খুব সহজে ঘরে বসে সমস্যাটা সমাধান করতে পারবেন তাহলে চলুন জেনে নি ঘরোয়া উপায় গুলোঃ

মোমবাতির মোমঃ পা ফাটা সারাতে মোমবাতির মন খুবই কার্যকরী। অল্প পরিমাণ মোমবাতির মোম এর সঙ্গে সরিষার তেল মিশিয়ে দেন ঘুমাতে যাওয়ার আগে আক্রান্ত স্থানে সারারাত ধরে লাগিয়ে রেখে দিন এতে পা ফাটা কমে যাবে।

ওট ও জোজোবা অয়েলঃ ওট মিল পাউডারের সাথে জোজোবা তেল একসঙ্গে মিশিয়ে একটি পেস্ট তৈরি করুন। এরপর ফাটা অংশে কিছুক্ষণ লাগিয়ে রেখে উষ্ণ পানিতে ধুয়ে নিন।

বেকিং সোডাঃ বেকিং সোডার একটি কার্যকারী গুন আছে যা পা ফাটা কে সারিয়ে তুলে এবং পায়ের দুর্গন্ধ দূর করে।অল্প পরিমাণ পানিতে বেকিং সোডা মিশিয়ে তা আপনি আপনার পায়ে ১৫ থেকে ২০ মিনিট লাগিয়ে রাখুন এরপর ইউনিক পাথর এর সাহায্যে ঘষে ঘষে পা পরিষ্কার করুন। এরপর তোলা দিয়ে ভালোভাবে পা মুছে ফেলুন।

গ্লিসারিন ও গোলাপ জলের মিশ্রণঃ গোলাপ জলের সঙ্গে অল্প পরিমান গিলিসারিন মিশিয়ে এটি পায়ের গোড়ালিতে সারারাত লাগিয়ে রাখুন। এতে পা ফাটাও পায়ের গোড়ালির যেকোনো ধরনের ব্যথা দূর করতে সাহায্য করবে।

তিলের তেলঃ তিলে তেলে রয়েছে এমন কিছু কার্যকরী গুণ যা গোড়ালি ফাটা অংশে লাগালে পা ফাটা খুব দ্রুত সেরে ওঠে।

ভ্যাসলিন ও লেবুর রসের মিশ্রণঃ একটি পাতিলেবুর রস এবং অল্প পরিমাণ ভেসলিন মিশিয়ে একটি মিশ্রণ তৈরি করুন এবং আপনার ফাটা অংশে কিছুক্ষণ মালিশ করুন, এতে খুব দ্রুত পা ফাটা ভালো হয়।

মধু ও পানির সংমিশ্রণঃ অর্ধেক বালতিতে হালকা গরম পানি নিয়ে তাতে এক কাপ মধু মিশিয়ে ২৫ মিনিট আপনার পা ভিজিয়ে রাখুন।

পাকা কলার পেস্টঃ সর্বপ্রথম ভালো মানের দুইটি কলা বাছাই করুন এরপর কলার একটি পেস্ট তৈরি করুন।ভালোভাবে পায়ের গোড়ালি ঘষে পরিষ্কার করার পর 15 থেকে 20 মিনিট আপনার পায়ে এই পেজটি লাগিয়ে রাখুন এরপর হালকা কুসুম গরম পানিতে ভালোভাবে পা পরিষ্কার করে নিন।

এলোভেরাঃ এলোভেরাতে রয়েছে তিনটি ভিটামিন তা হল ভিটামিন এ ই এবং সি। এছাড়াও এলোভেরা রয়েছে অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়া। এই গুণাবলী গুলো পা ফাটা থেকে মুক্তি দেয় এবং পায়ের যে কোন সংক্রমণের বিরুদ্ধে লড়াই করে। এটি ব্যবহারের জন্য সর্বপ্রথম আপনার পা কে ভালোভাবে ঘষে পরিষ্কার করে নিন।

এরপর একটি অ্যালোভেরার পাতার জেল আপনার পায়ের গোড়ালিতে ভালোভাবে মালিশ করুন এবং প্রত্যেকদিন ঘুমানোর আগে মেসেজ করে মোজ পরে ঘুমাতে যান। সকালে হালকা গরম কুসুম পানিতে ধুয়ে ফেলুন।

শীতকালে কেন পা ফাটে

শীতকালে কেন পা ফাটে অতিরিক্ত ঠান্ডার ফলে পায়ের গোড়ালির আদ্রতা কমে যায়। যার ফলে পায়ের গোড়ালি ফেটে যায়। শরীরের অন্যান্য তাদের চাইতে পায়ের গোড়ালি অনেক শক্ত হয়। আদ্রতা কম ও ধুলাবালির কারণে পায়ের গোড়ালি অধিক পরিমাণে শক্ত হয়ে যায় যার ফলে পা ফাটা শুরু হয়।
আবার অনেকে অতিরিক্ত ঠান্ডার কারণে গোসল এবং ঠিকমতো পা ধৌত করে না যার ফলে পায়ের গোড়ালি ফেটে যায়। এছাড়া যাদের ডায়াবেটিসহ থাইরয়েড হরমোনের প্রবলেম রয়েছে তাদের গোড়ালির আদ্রতা বেশি কমে যায়। তবে অতিরিক্ত পরিচর্যা ও পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার মাধ্যমে এ সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া সম্ভব।

পা ফাটা দূর করার ক্রিম

পা ফাটা দূর করার ক্রিম শীতকালে পা ফাটার সমস্যাটি বেশি দেখা দেয় কারণ এই সময় পায়ের আদ্রতা কমে যায় যার ফলে পায়ের গোড়ালে শক্ত হতে থাকে এবং পা ফাটা শুরু করে। বাংলাদেশের বাজারে বিভিন্ন ধরনের দেশি-বিদেশি ক্রিম পাওয়া যায়। চলুন জেনে নিয়ে পা ফাটা দূর করার ক্রিমের নাম এবং দাম সম্পর্কে।
  • রেমি পা ফাটা টুয়েন্টি ক্রিম যার দাম ৭৫ টাকা। 
  • হিল গার্ড ক্রিম ৩০ গ্রাম  ১৫০ টাকা
  • ইমুরিয়া ২৫ ক্রিম ৩০ গ্রাম  ১৫০ টাকা
  • ব্রো প্লাস ৪০ গ্রাম  ১৫০ টাকা
  • ক্রেক হিল ক্রিম ২৫ গ্রাম ২৫০ টাকা
  • হিমালয় ফুট কেয়ার ক্রিম ২০ গ্রাম 
তবে আপনি যে ক্রিম নেন না কেন অবশ্যই এক্সপায়ার ডেট দেখে নিবেন। 

পায়ের গোড়ালি ফাটা কমাবে যে সকল খাবার

আপনি নিয়মিত আপনি প্রতিদিন বিভিন্ন রকম খাবার খান তবে আপনি জানেন না কোন খাবার খেলে পায়ের গোড়ালে ফাটা কমাতে সাহায্য করবে। তাহলে চলুন আলোচনার এই পর্যায়ে আমরা জেনে নিই পায়ের গোড়ালি ফাটা কমাবে যে সকল খাবার।

খাবারগুলো হলো ক্যালসিয়াম জাতীয় খাবার, যে সকল খাবারে আয়রন রয়েছে, জিংক রয়েছে এমন খাবার এবং ওমেগা থ্রি ফ্যাটি এসিড। এছাড়াও আপনি ভিটামিন ই যুক্ত খাবার বেশি খান। যেমন দুধ, মাংস,  ডিম, সিম ও শাকসবজি ইত্যাদি।

সারা বছর পা ফাটা

সারা বছর পা ফা পায়ের গোড়ালি ফাটার সমস্যা শীতকালে সবচেয়ে বেশি হয় তবে যাদের সারা বছর এই পা ফাটে তাদের জন্য রয়েছে বিশেষ কিছু করণীয় যাক পালন করলে আপনি পা ফাটা থেকে মুক্তি পাবেন। পা ফাটা দূর করার ঘরোয়া উপায় পর্বটিতে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে, কিভাবে আপনি আপনার পায়ের গোড়ালি ফাটা রোধ করবেন।
এছাড়াও আপনাকে যে কাজগুলো করতে হবে সেগুলো নিম্নে দেয়া হলোঃ 
  • দিনশেষে বাড়ি ফেরার পর ভালোভাবে পা পরিষ্কার করে নিন।
  • গোসলের সময় ভালোভাবে ব্রাশ দিয়ে পায়ের গোড়ালি ঘষে পরিষ্কার করুন
  • গোসল শেষে পায়ের গোড়ায় মশ্চারাইজেশন লোশন লাগাতে পারেন।
  • একটি নির্দিষ্ট সময় বের করে প্রতিনিয়ত গরম পানি দিয়ে আপনার পাকে ১৫ থেকে ২০ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন।
  • একটি বিশেষ ধরনের ব্লেড আছে, যা ব্যবহার করে আপনি আপনার পায়ের শক্ত চামড়াগুলো কেটে ফেলতে পারেন। 
  • যারা অনেকক্ষণ ধরে বাইরে হাঁটাহাঁটি করেন তারা মোজা ব্যবহার করুন।

পাঠকের মন্তব্যঃ পা ফাটা দূর করার ঘরোয়া উপায়

পা ফাটা নিয়ে আমরা অনেকেই খুব চিন্তিত থাকি। যার কারণে বিভিন্ন সময় বিশেষ করে হাঁটাহাঁটি অথবা অনেকক্ষণ দাঁড়িয়ে থাকার ফলে পায়ের ব্যথা অনুভব করি। পায়ের গোড়ালি কেন ফাটে কোন সময় ফোটে এবং পা ফাটা দূর করার ঘরোয়া উপায় সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করেছি।

এই আর্টিকেলটিতে ঘরে বসে আপনি আপনার পায়ের যত্ন কিভাবে নিবেন তা জানানো হয়েছে। এই আর্টিকেলটি পড়ে আপনি আপনার মূল্যবান মতামতটি কমেন্ট বক্সের মাধ্যমে আমাদেরকে জানান। আপনি আপনার বন্ধু বান্ধবের সাথে শেয়ার করুন। পায়ের যত্ন নিন সুস্থ থাকুন ধন্যবাদ। 

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

অর্ডিনারি আইটির নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url