১০ হাজার থেকে ১৫ হাজার টাকার মধ্যে ভালো মোবাইল

আপনি কি ১০ হাজার থেকে ১৫ হাজার টাকার মধ্যে ভালো মোবাইল খুঁজছেন বা কোন ব্র্যান্ডের মোবাইল প্রয়োজন সে সম্পর্কে জানতে চাইছেন? এই বিষয়ে আমি আপনাকে সাহায্য করতে পারি। আজকের আর্টিকেলে ১০ হাজার থেকে ১৫ হাজার টাকার মধ্যে ভালো মোবাইল সম্পর্কে বর্ণনা করতে চলেছি, যা আপনার প্রয়োজনীয় ফিচার এবং বাজেটের সাথে মিল খায়।
১০ হাজার থেকে ১৫ হাজার টাকার মধ্যে ভালো মোবাইল
বর্তমান বাজারে, ১৫,০০০ টাকার মধ্যে স্যামসাং, শাওমি, রিয়েলমি এবং অন্যান্য স্মার্টফোন কোম্পানি অফিসিয়ালি এক বা একাধিক মডেল বিক্রি করছে। আমাদের আর্টিকেলে এই বাজেটের মধ্যে প্রাপ্ত সেরা স্মার্টফোনগুলি অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। তাই স্বল্প বাজেটে ফোন সম্পর্কে জানতে আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে পড়ুন।

পেজ সূচিপত্রঃ ১০ হাজার থেকে ১৫ হাজার টাকার মধ্যে ভালো মোবাইল

ভূমিকা

বর্তমানে, মানুষের প্রধান চাহিদা হিসেবে মোবাইল ফোন বা স্মার্টফোন উল্লেখযোগ্য রয়েছে। সময়ের সাথে মোবাইল ফোনের চাহিদা দিনকে দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। তথ্যপ্রযুক্তির এ সময়ে, মোবাইল ফোনের একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে। ব্যবহারকারীর চাহিদা অনুযায়ী, বিভিন্ন রকমের মোবাইল ব্র্যান্ডের উপস্থিতি দেখা যাচ্ছে বাজারে।
মোবাইলের জনপ্রিয় ব্র্যান্ড সম্পর্কে আমাদের জানা দরকার রয়েছে। বর্তমানে, বিশ্বের সেরা মোবাইল ফোন ব্র্যান্ড কোনগুলো? এবং ১০ হাজার থেকে ১৫ হাজার টাকার মধ্যে ভাল মোবাইল কোনগুলো আজকের আর্টিকেলে সে সকল বিষয় জানতে পারবেন।

সেরা ১০ টি মোবাইল ব্র্যান্ড এর নাম

মোবাইল প্রযুক্তির দিক থেকে সমৃদ্ধ এই ব্র্যান্ডগুলি ব্যবহারকারীদের জন্য উন্নত এবং অভ্যন্তরীণ ফিচার সরবরাহ করে। স্মার্টফোনের দুর্দান্ত ক্যামেরা, দ্রুত প্রসেসর, উচ্চ রেজোলিউশন ডিসপ্লে, লম্বা ব্যাটারি লাইফ সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। নিচে বর্তমান সময়ের সেরা ১০ টি মোবাইল ব্র্যান্ড এর নাম উল্লেখ করা হলো।
  • স্যামসাং (Samsung)
  • অ্যাপল (Apple)
  • শাওমি (Xiaomi)
  • হুয়াওয়ে (Huawei)
  • ওপ্পো (Oppo)
  • ভিভো (Vivo)
  • রিয়েলমি (Realme)
  • নোকিয়া (Nokia)
  • গুগল (পিক্সেল) (Google Pixel)
  • লিনোভো (Lenovo)
এই ব্র্যান্ডগুলি সারাবিশ্ব ও উদ্যোগশীল মোবাইল বাজারে পরিচিত এবং জনপ্রিয়।

Xiaomi ১০ হাজার থেকে ১৫ হাজার টাকার মধ্যে ভালো মোবাইল

Xiaomi এর ১০ হাজার থেকে ১৫ হাজার টাকার মধ্যে ভালো মোবাইল নিয়ে নিচের দুটি মডেল খুব জনপ্রিয়।

Xiaomi Poco M3

দামঃ প্রায় ১৪,৯৯৯ (৪/৬৪)

ডিসপ্লেঃ ৬.৫ ইঞ্চি IPS LCD ফুল এইচডি+ ডিসপ্লে, যা জাতীয় দৃষ্টিতে গ্রাহকদের অনুভব বেশি স্বর্ণিম করে।

ক্যামেরাঃ এই ফোনে আছে একটি ৪৮ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি ক্যামেরা, যা উচ্চ মানের ছবি তৈরি করতে সক্ষম। তার পাশাপাশি, এটি সম্পূর্ণ HD ছবি এবং ভিডিও রেকর্ডিং সুবিধা সহ একটি ২ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা রয়েছে।

ব্যাটারিঃ Xiaomi Poco M3 এর একটি বৃহত্তর স্বাধীন চালিত ব্যাটারি রয়েছে, যা আপনাকে একটি দিনের জন্য স্থিতিশীলতা প্রদান করতে সক্ষম।

ডিজাইনঃ এই ফোনটির সুন্দর ডিজাইনটি প্রকারে প্রয়োজনীয় আকর্ষণীয় মূল্য যোগ করে।

Xiaomi Redmi Note 9
  • দাম প্রায় ১৩,৯৯৯ টাকা
  • 6.53 ইঞ্চি IPS LCD ডিসপ্লে
  • কোরেন ৬২৫ গিরোস্কোপিক সেন্সরে মেডিটেক হেলিও G85 প্রসেসর
  • ৪৮ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি ক্যামেরা, ১৩ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা
  • ৫,০৭০মিএএইচ ব্যাটারি, ১৮ওয়াট ফাস্ট চার্জিং
  • MIUI 11, Android 10
এই মোবাইল ফোনগুলি বাংলাদেশী বাজারে উপলব্ধ এবং উচ্চ গুণমানের ডিসপ্লে, ক্যামেরা, প্রসেসর এবং ব্যাটারি পারফরমেন্স সহ অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ ফিচার প্রদান করে।

Vivo ১০ হাজার থেকে ১৫ হাজার টাকার মধ্যে ভালো মোবাইল

Vivo এর ১০ হাজার থেকে ১৫ হাজার টাকার মধ্যে ভালো মোবাইল মডেলগুলির মধ্যে কিছু জনপ্রিয় মডেল রয়েছে যা প্রযুক্তিগত সুযোগ এবং পারফরমেন্সে উন্নতি প্রদান করে। নিম্নলিখিত মডেলগুলি উল্লেখযোগ্যঃ

Vivo Y16
  • এটি একটি মাধ্যম শ্রেণীর ফোন যা ১৩,৯৯৯ টাকায় পাওয়া যায়। এই ফোনের কিছু বৈশিষ্ট্য হলোঃ
  • ৬.৫১ ইঞ্চির আইপিএস এলসিডি ডিসপ্লে, ৭২০ x ১৬০০ পিক্সেল রেজোলিউশন, এবং ২৭০ পিপি আই ডেন্সিটি।
  • মিডিয়াটেক হেলিও জি৩৫ চিপসেট, ৪ গিগাবাইট র্যাম, ৬৪/১২৮ গিগাবাইট রোম, এবং মালি-জি৫২ জিপিইউ।
  • চারটি ব্যাক ক্যামেরা, যার মধ্যে ১৩ মেগাপিক্সেল প্রাথমিক, ৮ মেগাপিক্সেল উল্ট্রাওয়াইড, ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো, এবং ২ মেগাপিক্সেল ডেপথ সেন্সর। এছাড়া আছে ৮ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা।
  • ৫০০০ মিলি আম্পিয়ার ব্যাটারি, ১৮ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং, এবং টাইপ-সি ইউএসবি পোর্ট।
  • এন্ড্রয়েড ১১ অপারেটিং সিস্টেম, ফানটাচ ওএস ১১, রিয়ার-মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর, ফেস আনলক, এবং আরো অনেক কিছু।
Vivo Y12s
  • এটি একটি বাজেট-ফ্রেন্ডলি ফোন যা ১২,৯৯০ টাকায় পাওয়া যায়। এই ফোনের কিছু বৈশিষ্ট্য হলোঃ
  • ৬.৫১ ইঞ্চির আইপিএস এলসিডি ডিসপ্লে, ৭২০ x ১৬০০ পিক্সেল রেজোলিউশন, এবং ২৭০ পিপি আই ডেন্সিটি।
  • মিডিয়াটেক হেলিও প৩৫ চিপসেট, ৩/৪ গিগাবাইট র্যাম, ৩২/৬৪ গিগাবাইট রোম, এবং মালি-জি৫২ জিপিইউ।
  • দুইটি ব্যাক ক্যামেরা, যার মধ্যে ১৩ মেগাপিক্সেল প্রাথমিক এবং ২ মেগাপিক্সেল ডেপথ সেন্সর। এছাড়া আছে ৮ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা।
  • ৫০০০ মিলি আম্পিয়ার ব্যাটারি, ১০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং, এবং মাইক্রো ইউএসবি পোর্ট।
  • এন্ড্রয়েড ১০ অপারেটিং সিস্টেম, ফানটাচ ওএস ১০, সাইড-মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর, ফেস আনলক, এবং আরো অনেক কিছু।
এই মোবাইল ফোনগুলি বাজারে রয়েছে এবং মূল্যসহ অন্যান্য মডেলগুলের সাথে তুলনা করে অনেক গুণগত বৈশিষ্ট্য এবং আধুনিক ডিজাইন সহজেই আপনার মোবাইল অভিজ্ঞতা উন্নত করতে সাহায্য করতে পারে।

Samsung ১০ হাজার থেকে ১৫ হাজার টাকার মধ্যে ভালো মোবাইল

Samsung এর ১০ হাজার থেকে ১৫ হাজার টাকার মধ্যে ভালো মোবাইল বিবেচনা করা হলে, নিম্নের দুটি জনপ্রিয় মডেল উল্লেখযোগ্য।

Samsung Galaxy M04
  • এটি একটি বাজেট-ফ্রেন্ডলি ফোন যা ১০,৯৯৯ টাকায় পাওয়া যায়। এই ফোনের কিছু বৈশিষ্ট্য হলোঃ
  • ৬.৫ ইঞ্চির আইপিএস এলসিডি ডিসপ্লে, ৭২০ x ১৬০০ পিক্সেল রেজোলিউশন, এবং ২৭০ পিপি আই ডেন্সিটি।
  • কোয়ালকম স্ন্যাপড্র্যাগন ৪৫০ চিপসেট, ৪ গিগাবাইট র্যাম, ৬৪ গিগাবাইট রোম, এবং এড্রিনো ৫০৬ জিপিইউ।
  • দুইটি ব্যাক ক্যামেরা, যার মধ্যে ১৩ মেগাপিক্সেল প্রাথমিক এবং ২ মেগাপিক্সেল ডেপথ সেন্সর। এছাড়া আছে ৫ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা।
  • ৫০০০ মিলি আম্পিয়ার ব্যাটারি, ১৫ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং, এবং টাইপ-সি ইউএসবি পোর্ট।
  • এন্ড্রয়েড ১১ অপারেটিং সিস্টেম, ওয়ান ইউআই ৩.১, রিয়ার-মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর, ফেস আনলক, এবং আরো অনেক কিছু।
Samsung Galaxy F04
  • এটি একটি বাজেট-ফ্রেন্ডলি ফোন যা ১০,৯৯৯ টাকায় পাওয়া যায়। এই ফোনের কিছু বৈশিষ্ট্য হলোঃ
  • ৬.৫ ইঞ্চির আইপিএস এলসিডি ডিসপ্লে, ৭২০ x ১৬০০ পিক্সেল রেজোলিউশন, এবং ২৭০ পিপি আই ডেন্সিটি।
  • মিডিয়াটেক হেলিও প২২ চিপসেট, ৩ গিগাবাইট র্যাম, ৩২ গিগাবাইট রোম, এবং মালি-জি৭১ জিপিইউ।
  • একটি ১৩ মেগাপিক্সেল ব্যাক ক্যামেরা এবং একটি ৫ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা।
  • ৫০০০ মিলি আম্পিয়ার ব্যাটারি, ১০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং, এবং মাইক্রো ইউএসবি পোর্ট।
  • এন্ড্রয়েড ১০ অপারেটিং সিস্টেম, ওয়ান ইউআই ২.৫, রিয়ার-মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর, ফেস আনলক, এবং আরো অনেক কিছু।
এই মোবাইল ফোনগুলি বাজারে পাওয়া যায় এবং উচ্চ গুণমানের ডিসপ্লে, ক্যামেরা, প্রোসেসর এবং ব্যাটারি পারফরমেন্স সহ অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ ফিচার প্রদান করে। এই মডেলগুলি উচ্চ গুণমানের মোবাইল অভিজ্ঞতা উন্নত করতে সাহায্য করতে পারে।

Realme ১০ হাজার থেকে ১৫ হাজার টাকার মধ্যে ভালো মোবাইল

Realme এর ১০ হাজার থেকে ১৫ হাজার টাকার মধ্যে ভালো মোবাইল বিবেচনা করা হলে, নিম্নের দুটি জনপ্রিয় মডেল উল্লেখযোগ্য।

Realme Narzo 50A
  • দাম প্রায় ১৪,৯৯৯ টাকা (আন অফিসিয়াল)
  • 6.5 ইঞ্চি HD+ IPS ডিসপ্লে
  • MediaTek Helio G85 প্রোসেসর
  • 50MP মেইন ক্যামেরা, 2MP মাইক্রো, 2MP ডিপ্থ সেন্সর, 8MP ফ্রন্ট ক্যামেরা
  • 6000mAh ব্যাটারি
  • Realme UI 2.0, based on Android 11
Realme C25
  • দাম প্রায় ১৩,৯৯০ থেকে ১৪,৯৯০ টাকা
  • 6.5 ইঞ্চি HD+ IPS ডিসপ্লে
  • MediaTek Helio G70 প্রোসেসর
  • 48MP মেইন ক্যামেরা, 2MP মাইক্রো, 2MP ডিপ্থ সেন্সর, 8MP ফ্রন্ট ক্যামেরা
  • 6000mAh ব্যাটারি
  • Realme UI 2.0, based on Android 11
এই মোবাইল ফোনগুলি বাজারে পাওয়া যায় এবং উচ্চ গুণমানের ডিসপ্লে, ক্যামেরা, প্রোসেসর এবং ব্যাটারি পারফরমেন্স সহ অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ ফিচার প্রদান করে। এই মডেলগুলি উচ্চ গুণমানের মোবাইল অভিজ্ঞতা উন্নত করতে সাহায্য করতে পারে।

Oppo ১০ হাজার থেকে ১৫ হাজার টাকার মধ্যে ভালো মোবাইল

Oppo এর ১০ হাজার থেকে ১৫ হাজার টাকার মধ্যে ভালো মোবাইল নির্বাচনের জন্য নিম্নে কিছু জনপ্রিয় মডেল উল্লেখ করা হলো।

Oppo A15
  • ১০,৯৯৯ টাকা
  • 6.52 ইঞ্চি HD+ ডিসপ্লে
  • MediaTek Helio P35 প্রোসেসর
  • 13MP মেইন ক্যামেরা, 2MP ডিপ্থ সেন্সর, 2MP মাইক্রো, 5MP ফ্রন্ট ক্যামেরা
  • 4230mAh ব্যাটারি
  • ColorOS 7.2, based on Android 10
Oppo A15s
  • ১২,৯৯৯ টাকা
  • 6.52 ইঞ্চি HD+ ডিসপ্লে
  • MediaTek Helio P35 প্রোসেসর
  • 13MP মেইন ক্যামেরা, 2MP ডিপ্থ সেন্সর, 2MP মাইক্রো, 8MP ফ্রন্ট ক্যামেরা
  • 4230mAh ব্যাটারি
  • ColorOS 7.2, based on Android 10
এই মোবাইল ফোনগুলি বাজারে পাওয়া যায় এবং মূল্যবান ফিচার যেমন ডিসপ্লে, ক্যামেরা, ব্যাটারি জন্য এটি পর্যাপ্ত হতে পারে আপনার দৈনন্দিন ব্যবহারের জন্য।

শেষ কথাঃ ১০ হাজার থেকে ১৫ হাজার টাকার মধ্যে ভালো মোবাইল

শেষ কথায় বলতে চাই, ১০ হাজার থেকে ১৫ হাজার টাকার মধ্যে ভালো মোবাইল খুঁজতে গিয়ে অনেক মডেল ও ব্র্যান্ডের সম্মিলিত একটি বিশাল বাজার আছে। আজকে আর্টিকেলে বিভিন্ন ব্র্যান্ডের মধ্যম বাজেটের ভালো ফোনের বিষয় নিয়ে বলার চেষ্টা করেছি। আশা করি আর্টিকেলটি আপনাদের ভালো লেগেছে।
আজকের আর্টিকেল সম্পর্কে আপনাদের কোন মতামত থাকলে অবশ্যই কমেন্টের মাধ্যমে জানাবেন। আর মোবাইল কেনার সময় অবশ্যই প্রয়োজনীয় ফিচার এবং ব্যাটারি লাইফ বিবেচনা করে মোবাইল নির্বাচন । ধন্যবাদ!

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

Dev Serp এর নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url