কিশোরগঞ্জ টু ঢাকা ট্রেনের সময়সূচী ও ভাড়া

আপনি কি কিশোরগঞ্জ থেকে ঢাকা যাওয়ার পরিকল্পনা করছেন? অথবা কিশোরগঞ্জ টু ঢাকা ট্রেনের সময়সূচী ও ভাড়ার তালিকা খুঁজছেন? তাহলে আজকে আর্টিকেলটি আপনার জন্য। আজকের আর্টিকেলটিতে আমরা কিশোরগঞ্জ টু ঢাকা ট্রেনের সময়সূচী ও ভাড়ার তালিকা সহ বিভিন্ন তথ্য আলোচনা করব।
কিশোরগঞ্জ টু ঢাকা ট্রেনের সময়সূচী ও ভাড়া
কিশোরগঞ্জ থেকে ঢাকা প্রতিদিন নিয়মিত ট্রেন চলাচল করছে। এই ট্রেনগুলির নাম, সময়সূচী, ভাড়া এবং বিরতি স্টেশনসহ সকল তথ্য আজকের আর্টিকেলে আলোচনা করতে চলেছি। এই সকল বিষয়ে বিস্তারিত জানতে আমাদের আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে পড়ুন ।

পেজ সূচিপত্রঃ কিশোরগঞ্জ টু ঢাকা ট্রেনের সময়সূচী ও ভাড়া

ভূমিকা

কিশোরগঞ্জ থেকে ঢাকা পর্যন্ত ট্রেনের দূরত্ব প্রায় ১৩৫ কিলোমিটার। বর্তমানে অধিকাংশ যাত্রীরা ট্রেনে যাত্রা করে এই দূরত্ব পার করেন। কিশোরগঞ্জ থেকে ঢাকা পর্যন্ত ট্রেন পথে যাতায়াত করতে পছন্দ করেন তাদের জন্য এই আর্টিকেলটি প্রস্তুত করা হয়েছে।
এখানে আমরা সমস্ত ট্রেনের সময়সূচি এবং টিকিটের মূল্য সহ বিস্তারিত তথ্য উপস্থাপন করেছি। এই আর্টিকেলটি পড়ে আপনি আপনার ট্রেন যাত্রার নিরাপত্তা ও সুবিধাজনক করতে পারবেন। তাই যারা এই পথে ভ্রমণ করতে চান, তারা এই আর্টিকেলটি সম্পূর্ণ মনোযোগ দিয়ে পড়তে পারেন।

কিশোরগঞ্জ টু ঢাকা ট্রেন সম্পর্কে সংক্ষেপে

কিশোরগঞ্জ থেকে ঢাকা রেলপথ একটি জনপ্রিয় এবং ব্যস্ত রুট। দুটি শহর একে অপরকে খুব কাছে অবস্থিত, দূরত্ব মাত্র ১৩৫ কিলোমিটার। এই পথে প্রতিনিয়ত তিনটি আন্তঃনগর ট্রেন যাতায়াত করে। পূর্বে এই রুটে ঈশা খাঁ এক্সপ্রেস মেইল ট্রেন চলাচল করতো। ২০২০ সালের ১২ ই মার্চ ট্রেনটির চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।
আন্তঃনগর ট্রেনগুলির মধ্যে বিশেষভাবে কিশোরগঞ্জ এক্সপ্রেস এবং এগারো সিন্ধু প্রভাতী এক্সপ্রেস সকাল থেকে বিকালে চলে এবং ঢাকা স্টেশন পর্যন্ত পৌঁছায়। এই ট্রেনগুলির মধ্যে সিন্ধুর প্রভাতী এক্সপ্রেস অত্যন্ত জনপ্রিয়। আন্তঃনগর ট্রেনে কিশোরগঞ্জ থেকে ঢাকা পর্যন্ত পৌঁছতে প্রায় ৪ ঘণ্টা সময় লাগে।

কিশোরগঞ্জ টু ঢাকা ট্রেনের তালিকা

ঢাকা থেকে কিশোরগঞ্জ যাওয়ার জন্য নিয়মিত চালু থাকে তিনটি আন্তঃনগর ট্রেন। এই তিনটি আন্তঃনগর ট্রেনে ঢাকা থেকে কিশোরগঞ্জ পর্যন্ত ভ্রমণ সম্পন্ন করা যায়। আপনি নিজের পছন্দ অনুযায়ী ট্রেনের টিকিট কেটে যেতে পারেন। নিচে ঢাকা থেকে কিশোরগঞ্জ যাওয়ার জন্য আন্তঃনগর ট্রেনের তালিকা দেওয়া হলো।
  • এগারসিন্ধুর প্রভাতী (৭৩৮)
  • এগারসিন্ধুর গোধূলি (৭৫০)
  • কিশোরগঞ্জ এক্সপ্রেস (৭৮২)
এই তিনটি ট্রেন ঢাকা থেকে কিশোরগঞ্জ রুটে চলাচল করে থাকে।

কিশোরগঞ্জ টু ঢাকা ট্রেনের সময়সূচী

ট্রেনের সময়সূচি আপনার ভ্রমণের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। প্রতিটি ট্রেনের সময় এবং থামনের সময়সূচি ভিন্ন হতে পারে, তাই আপনার যাত্রা সম্পর্কে সঠিক তথ্য পেতে সর্বদা নিজেকে আপডেট রাখা উচিত। নিচে কিশোরগঞ্জ টু ঢাকা রুটে চলমান ট্রেনের সময়সূচি ছুটির দিন সহ উল্লেখ করা হলো।

এগারসিন্ধুর প্রভাতী (৭৩৮)
  • ছাড়ার সময়ঃ সকাল ০৬ঃ৩০ মিনিট
  • পৌঁছানোর সময়ঃ সকাল ১০ঃ৩০ মিনিট
  • ছুটির দিনঃ নাই
এগারসিন্ধুর গোধূলি (৭৫০)
  • ছাড়ার সময়ঃ দুপুর ১২ঃ৫০ মিনিট
  • পৌঁছানোর সময়ঃ বিকাল ০৪ঃ৪৫ মিনিট
  • ছুটির দিনঃ বুধবার
কিশোরগঞ্জ এক্সপ্রেস (৭৮২)
  • ছাড়ার সময়ঃ বিকাল ০৪ঃ০০ মিনিট
  • পৌঁছানোর সময়ঃ রাত ০৭ঃ৫৫ মিনিট
  • ছুটির দিনঃ সোমবার
এই সময়সূচী বাংলাদেশ রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ যেকোনো সময়ে পরিবর্তন করতে পারে, তাই সর্বদা সর্বশেষ তথ্যের জন্য আপনি রেলওয়ে বা অনলাইনে সময়সূচি চেক করতে পারেন।

কিশোরগঞ্জ টু ঢাকার ট্রেনের ভাড়া

কিশোরগঞ্জ থেকে ঢাকা যাওয়ার জন্য ট্রেনের ভাড়া বিভিন্ন ধরণের হতে পারে এবং তা আপনার যাত্রার শ্রেণি এবং সুবিধার উপর নির্ভর করে। নিচে কিশোরগঞ্জ টু ঢাকার ট্রেনের ভাড়া উল্লেখ করা হলো।
  • শোভনঃ ১২৫ টাকা
  • শোভন চেয়ারঃ ১৫০ টাকা
  • ফার্স্ট ক্লাস সিটঃ ২৩০ টাকা (ভ্যাটসহ)
  • ফার্স্ট ক্লাস চেয়ারঃ ২৩০ টাকা (ভ্যাটসহ)
  • স্নিধাঃ ২৮৮ টাকা (ভ্যাটসহ)
  • এসি সিটঃ ৩৪৫ টাকা (ভ্যাটসহ)
এই তথ্যগুলির মাধ্যমে আপনি আপনার যাত্রার পরিকল্পনা করতে পারেন। সাথে কিশোরগঞ্জ থেকে ঢাকা যাওয়া ট্রেনের সময়সূচি উপরে প্রদর্শিত হয়েছে, যা আপনাকে সঠিক সময়ে যাত্রা করার সুযোগ দেবে।

কিশোরগঞ্জ টু ঢাকা ট্রেনের বিরতি স্টেশন সমূহ

ট্রেনের বিরতি স্টেশন জানা গুরুত্বপূর্ণ কারণ হলো আপনার যাত্রার পরিকল্পনা করার জন্য। যখন আপনি একটি ট্রেনে ভ্রমণ করছেন, তখন আপনার যে কোনো স্টেশনে বিরতি করতে হতে পারে। তাই সেটি জানা গুরুত্বপূর্ণ হতে পারে। কিশোরগঞ্জ থেকে ঢাকা যাওয়া ট্রেনের বিরতি স্টেশনগুলি নিম্নে উল্লেখ করা হলো।
  • কিশোরগঞ্জ থেকে
  • গছিহাতা
  • মানিকখালি
  • সরারচর
  • বাজিতপুর
  • কুলিয়ারচর
  • ভৈরব বাজার
  • মেথিকান্দা
  • নরসিংদি
  • বিমানবন্দর
  • ঢাকা
উল্লেখিত স্টেশনগুলি ট্রেনের ভ্রমণের সময়ে বিরতি করে। যাত্রীরা যে কোনও স্টেশনে বিরতি গ্রহণ করতে পারেন।

আজকের আর্টিকেল সম্পর্কে সচরাচর প্রশ্ন

প্রশ্নঃ ট্রেনগুলির কতগুলো প্রকার রয়েছে?
উত্তরঃ ট্রেনের প্রকার বিভিন্ন হতে পারে, যেমনঃ এক্সপ্রেস, মেইল, লোকাল, ইন্টারসিটি ইত্যাদি।
প্রশ্নঃ প্রতিদিন কতগুলো ট্রেন ঢাকা যাত্রা করে?
উত্তরঃ প্রতিদিন কিশোরগঞ্জ থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে তিনটি ট্রেন যাত্রা করে।
প্রশ্নঃ ট্রেনের যাত্রা শুরু হওয়ার সময় কি?
উত্তরঃ ট্রেন শুরু হওয়ার সময় প্রতিটি ট্রেনের জন্য বিভিন্ন হতে পারে, সেটা সম্পূর্ণভাবে ট্রেনের প্রকার ও সময়সূচীর উপর নির্ভর করে। কিশোরগঞ্জ থেকে ঢাকা ট্রেনের সময়সূচী পেতে আর্টিকেলটি ভালোভাবে পড়ুন।
প্রশ্নঃ ট্রেন কত সময় ধরে ঢাকা পৌঁছায়?
উত্তরঃ কিশোরগঞ্জ থেকে ঢাকা পৌঁছাতে চার থেকে পাঁচ ঘন্টা সময় লাগতে পারে। এটা ট্রেনের ধরণ, রুট এবং বিভিন্ন অন্যান্য ফ্যাক্টরে নির্ভর করে।
প্রশ্নঃ ট্রেনের ভাড়া কত?
উত্তরঃ ট্রেনের ভাড়া ট্রেনের প্রকার, আসন বিভাগ এবং অন্যান্য ফ্যাক্টরের উপর ভিত্তি করে পরিবর্তন করতে পারে। এই রুটের ভাড়ার সর্বনিম্ন ১২৫ টাকা এবং সর্বোচ্চ ৩৪৫ টাকা।
প্রশ্নঃ আন্তঃনগর ট্রেনের ভিতরে কোন সুবিধা রয়েছে?
উত্তরঃ আন্তঃনগর ট্রেনের ভিতরে বিভিন্ন সুবিধা রয়েছে, যেমন বিশেষ আসন, পানি সরবরাহ, আউটলেট, ইত্যাদি।
প্রশ্নঃ ট্রেনের বিরতি স্টেশন গুলি কোনগুলো?
উত্তরঃ ট্রেনের বিরতি স্টেশনগুলি বিভিন্ন ট্রেনের জন্য বিভিন্ন হতে পারে। আচ্ছা আর্টিকেলে উল্লেখ করা রয়েছে।
প্রশ্নঃ ট্রেন টিকিট কীভাবে বুক করতে হয়?
উত্তরঃ ট্রেন টিকিট অনলাইনে বুক করা যেতে পারে অথবা ট্রেন স্টেশন থেকে সংগ্রহ করা যেতে পারে।

শেষ কথাঃ কিশোরগঞ্জ টু ঢাকা ট্রেনের সময়সূচী ও ভাড়া

আজকের আর্টিকেলে কিশোরগঞ্জ থেকে ঢাকা যাওয়ার ট্রেনের সময়সূচী এবং ভাড়া সম্পর্কে খুব ভালোভাবে আলোচনা করা হয়েছে । যদি আপনার কোথাও বুঝতে সমস্যা হয়, তবে অবশ্যই আমাদেরকে জানাবেন কমেন্ট বক্সের মাধ্যমে । আমরা প্রতিটি প্রশ্ন বুঝার চেষ্টা করব এবং আপনাকে সঠিক তথ্য সরবরাহ করার জন্য প্রচেষ্টা করব।
যদি বাংলাদেশের রেলওয়ে অফিস কোনও পরিবর্তন বা আপডেট করে, তবে অবশ্যই সেই তথ্য এই আর্টিকেলে আপডেট করা হবে। আমাদের আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে পড়ার জন্য ধন্যবাদ।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

অর্ডিনারি আইটির নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url