সিরাজগঞ্জ টু ঢাকা ট্রেনের সময়সূচী

প্রিয় পাঠক, আপনি কি সিরাজগঞ্জ টু ঢাকা ট্রেনের সময়সূচী সম্পর্কে জানার জন্য খোঁজাখুঁজি করছেন? তাহলে আপনি সঠিক জায়গায় এসেছেন। কারণ এই আর্টিকেল আলোচনা করব সিরাজগঞ্জ টু ঢাকা ট্রেনের সময়সূচী এবং ভাড়ার তালিকা। আজকের আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে পড়লে সিরাজগঞ্জ টু ঢাকা ট্রেনের সময়সূচী এবং ভাড়ার তালিকা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারবেন।
সিরাজগঞ্জ টু ঢাকা ট্রেনের সময়সূচী
ট্রেনে যাত্রা শুধু আনন্দদায়ক নয়, তার সাথে এটি খুবই নিরাপদ এবং আরামদায়ক উপায়ে ভ্রমণ করার জন্য পরিবেশ তৈরি করে। আপনি সিরাজগঞ্জ থেকে ঢাকা ট্রেনে ভ্রমণ করতে চান কিন্তু ট্রেনের সময়সূচী এবং টিকিটের মূল্যের তথ্য নিয়ে চিন্তিত? আপনার জন্যই আজকের আর্টিকেলে সিরাজগঞ্জ টু ঢাকা ট্রেনের সময়সূচী এবং ভাড়ার তালিকা সহ সকল তথ্য আলোচনা করব। 

পেজ সূচিপত্রঃ সিরাজগঞ্জ টু ঢাকা ট্রেনের সময়সূচী

ভূমিকা

যদি আপনি সিরাজগঞ্জ থেকে ঢাকা ট্রেনে চেপে পৌঁছাতে চান এবং সেরা অভিজ্ঞতা অর্জন করতে চান, তাদের জন্য ট্রেন হতে পারে একটি অদ্বিতীয় পথ। প্রতিদিন অসংখ্য মানুষ সিরাজগঞ্জ থেকে ঢাকা ট্রেনে ভ্রমণ করতে পছন্দ করে। ভ্রমণের জন্য সঠিক ট্রেনটি নির্বাচন করা গুরুত্বপূর্ণ। এই আর্টিকেলে প্রয়োজনীয় সকল তথ্য যেমন এই রুটে কতগুলো ট্রেন চলাচল করে।

কোন ট্রেন কখন যায় এবং আসে বা চলাচল করে সেগুলো সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করতে চলেছি, যাতে আপনি আপনার প্রতিটি ট্রিপে কম ঝামেলার সাথে যাত্রা করতে পারেন। তাই আজকের সিরাজগঞ্জ টু ঢাকা ট্রেনের সময়সূচী ও ভাড়ার তালিকা আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে পড়ুন।

সিরাজগঞ্জ টু ঢাকা ট্রেন সম্পর্কে সংক্ষেপে

"সিরাজগঞ্জবাসী স্বার্থরক্ষা সংগ্রাম কমিটি"-র নির্দিষ্ট একটি ব্যানারে ২০০০ সাল থেকে একটি নির্দিষ্ট আন্দোলন চলছে। এই আন্দোলনের অবস্থা সৃষ্টিকারীভাবে, ২০০৯ সালের ৯ই এপ্রিলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সিরাজগঞ্জ সরকারি বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের জনসভায় ঘোষণা করেন যে, সিরাজগঞ্জকে রেল নেটওয়ার্কের আওতায় আনতে।

এই ঘোষণার পরিণতির ফলে, ২০১৩ সালের ২৭শে জুনে সিরাজগঞ্জ এক্সপ্রেস চালু হয়। ট্রেনটি সকাল ৭টায় ঈশ্বরদী ট্রেন স্টেশন থেকে ছাড়ে এবং বেলা ১০টায় সিরাজগঞ্জ বাজারে পৌঁছায়, ঢাকার কমলাপুরে যাতায়াত শুরু করে। যাত্রীদের উত্সাহিত করতে প্রয়াসকৃত হওয়ার পরে, ২০১৫ সালের ১৩ই ডিসেম্বরে ট্রেনটির সময় এবং রুট পরিবর্তন করে,
ভোর ৬টায় সিরাজগঞ্জ বাজার থেকে সরাসরি ঢাকায় যাত্রা শুরু করে, এবং বিকেল ৫টায় ঢাকার কমলাপুর থেকে রাতে সিরাজগঞ্জ বাজারে পৌঁছায়। "সিরাজগঞ্জ এক্সপ্রেস" এ ১১ টি কোচে ৯৬৬টি সিট রয়েছে, যাতে এসি স্লিপার শ্রেণীতে ৭৮টি, স্নিগ্ধার ১০৫টি এবং শোভন চেয়ারে ৭৮৩টি আসন রয়েছে।

সিরাজগঞ্জ টু ঢাকা ট্রেনের সময়সূচী

সিরাজগঞ্জ হতে ঢাকা যাওয়ার জন্য একটি সহজ এবং দ্রুত পরিবহন সুবিধা হলো "সিরাজগঞ্জ এক্সপ্রেস" ট্রেন এর মাধ্যমে সিরাজগঞ্জ থেকে ঢাকা যাওয়া যায়। "সিরাজগঞ্জ এক্সপ্রেস" ট্রেনে চলার সময় মাত্র ৪ ঘন্টা ২০ মিনিট, এবং এই সময়ের মধ্যে ঢাকা পৌঁছাতে পারবেন।

সিরাজগঞ্জ হতে ঢাকা পৌঁছাতে ইচ্ছুক যাত্রীরা এই ট্রেনটি বাছাই করতে পারেন। সিরাজগঞ্জ এক্সপ্রেস ট্রেনের সপ্তাহে একদিন ছুটি রয়েছে, এবং এই ছুটির দিনটি হচ্ছে শনিবার। নীচে স্টেশন সমূহের জন্য ছুটির দিন, সময় ছাড়ার এবং পৌঁছানোর সময়ের তালিকা দেওয়া হল। 

সিরাজগঞ্জ থেকে ঢাকা
  • স্টেশনের নামঃ সিরাজগঞ্জ
  • ছুটির দিনঃ শনিবার
  • সময় ছাড়ার সময়ঃ ০৬ঃ০০
  • পৌঁছানোর সময়ঃ ১০ঃ১০
ঢাকা থেকে সিরাজগঞ্জ
  • স্টেশনের নামঃ সিরাজগঞ্জ
  • ছুটির দিনঃ শনিবার
  • সময় ছাড়ার সময়ঃ ১৬ঃ১৫
  • পৌঁছানোর সময়ঃ ২০ঃ৪০
ঠিক সময়ে গন্তব্যে পৌঁছতে সাহায্য করার জন্য, এই সময়সূচি যাত্রীদের একটি উপকারী মাধ্যম হতে পারে। ট্রেনের সময়সূচি মেনে চললে যাত্রীরা তাদের পছন্দ মত স্টেশন থেকে যাত্রা শুরু করতে পারবেন এবং তাদের গন্তব্য স্থানে সঠিক সময়ে পৌঁছতে সহায়ক হতে পারে।

সিরাজগঞ্জ টু ঢাকা ট্রেনের ভাড়ার তালিকা

এই রুটের টিকিটের দাম অন্য যেকোনো পরিবহনের তুলনায় তুলনামূলক অনেক কম। এটি নিয়মিত বাস এবং অন্যান্য পরিবহন ব্যবস্থার তুলনায় সস্তা এবং মধ্যবিত্ত এবং নিম্ন-মধ্যবিত্তদের জন্য এটি সেরা পছন্দ হতে পারে।
সিরাজগঞ্জ থেকে ঢাকা রুটের টিকিট মূল্য বিভাগ অনুসারে আসনের সংখ্যা এবং সুবিধা অনুসারে পরিবর্তন হতে পারে । সিরাজগঞ্জ এক্সপ্রেস ট্রেনের আসন বিভাগ এবং তাদের মূল্য তালিকা নিম্নে দেওয়া হলো । 
  • শোভন চেয়ার - ২৯৫ টাকা
  • প্রথম সিট - ৩৯০ টাকা
  • প্রথম বার্থ - ৫৮৫ টাকা
  • স্নিগ্ধা - ৪৯০ টাকা
  • এসি সিট - ৫৮৫ টাকা
  • এসি বার্থ - ৮৮০ টাকা
উল্লেখযোগ্য যে, এই মূল্যগুলি ১৫% ভ্যাট সহ। আপনি নিজেদের যাত্রা পরিকল্পনা করতে এই তথ্য ব্যবহার করতে পারেন এবং আপনার পছন্দ অনুযায়ী টিকিট কেনার জন্য ব্যবহার করতে পারেন।

সিরাজগঞ্জ টু ঢাকা ট্রেনের বিরত স্টেশন সমূহ

সিরাজগঞ্জ এক্সপ্রেস ট্রেনটি ঢাকা থেকে সিরাজগঞ্জে গিয়ে যাত্রা করতে নয়টি বিরতি স্টেশনে থামে। নিম্নলিখিত টেবিলে বিরতি স্টেশনগুলির নাম এবং তাদের বিরতি সময় দেওয়া হলোঃ 
  • বিরতি স্টেশন নাম  - সিরাজগঞ্জ থেকে (৭৭৫) - ঢাকা থেকে (৭৭৬)
  • সিরাজগঞ্জ রায় পুর - ০৬ঃ০৮ - ২১ঃ০৮
  • জামতৈল  - ০৬ঃ২১  - ২০ঃ৩৫
  • শহীদ-এম-মনসুর-আলী  - ০৬ঃ৪৮ - ২০ঃ৩০
  • বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম  - ০৬ঃ৫৭
  • বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্ব - ০৭ঃ৩০ - ১৯ঃ০৫
  • টাঙ্গাইল  - ০৭ঃ৫২ - ১৯ঃ০৫
  • হাই-টেক সিটি - ০৮ঃ৪২
  • জয়দেবপুর - ০৯ঃ১৫ - ১৭ঃ৫৭
  • বিমানবন্দর - ০৯ঃ৪২ - ১৭ঃ২৭
এই সময়সূচির মাধ্যমে, সিরাজগঞ্জ এক্সপ্রেস ট্রেনটি উক্ত স্টেশনগুলির কাছে থামে এবং ভ্রমণকারীদের ভ্রমণ সুবিধা নিয়ে তাদের গন্তব্যে পৌঁছাতে সহায়ক হয়।

সিরাজগঞ্জ টু ঢাকা ট্রেনের ছুটির দিন সমূহ

সিরাজগঞ্জ এক্সপ্রেস ট্রেনটি ঢাকা থেকে সিরাজগঞ্জ রুটে চলাচল করতে সাপ্তাহিক ছুটি রয়েছে। এই ট্রেনটি সপ্তাহের ছয়দিন চলাচল করে এবং একদিন এই ট্রেনটি বন্ধ থাকে। সিরাজগঞ্জ এক্সপ্রেস ট্রেন ঢাকা থেকে সিরাজগঞ্জে একদিন হল  শনিবার। অর্থাৎ, শনিবার বাদে অন্য যেকোনো দিন আপনারা সিরাজগঞ্জ এক্সপ্রেস ট্রেনটি ব্যবহার করে আপনার যাত্রা সম্পূর্ণ করতে পারবেন।

আজকের আর্টিকেলে সচরাচর প্রশ্ন

প্রশ্নঃ ট্রেনেটির ছুটির দিন কি?
উত্তরঃ সিরাজগঞ্জ এক্সপ্রেস ট্রেনের ছুটির দিন হল শনিবার।
প্রশ্নঃ ট্রেনটি কোথা থেকে শুরু হয় এবং কোথায় শেষ হয়?
উত্তরঃ ট্রেনটি সিরাজগঞ্জ বাজার স্টেশন হতে শুরু হয় এবং ঢাকা কমলাপুর স্টেশনে শেষ হয়।
প্রশ্নঃ ট্রেনের ভ্রমণের সময় কত?
উত্তরঃ ভ্রমণের সময় প্রায় ৪ ঘন্টা ২০ মিনিট লাগে।
প্রশ্নঃ আসনের টিকিট মূল্য কি?
উত্তরঃ আসনের টিকিট মূল্য বিভাগ অনুসারে আসনের টিকিট মূল্য বিভিন্ন, এই তথ্যটি উপর উপরে আর্টিকেলে উল্লেখ করা হয়েছে। বিশেষ তথ্যের জন্য বাংলাদেশ রেলওয়ে ওয়েবসাইট দেখুন অথবা স্থানীয় টিকিট অফিসে যোগাযোগ করুন।
প্রশ্নঃ ট্রেনে কি ধরনের আসন রয়েছে?
উত্তরঃ ট্রেনে শোভন চেয়ার, প্রথম বার্থ, স্নিগ্ধা, এসি সিট, এসি বার্থ ইত্যাদি ভিন্ন ভিন্ন ধরনের আসন রয়েছে।
প্রশ্নঃ ট্রেনের ভ্রমণ সময়ে কোন স্টেশনে বিরতি রাখা হয়?
উত্তরঃ ভ্রমণ সময়ে সিরাজগঞ্জ এক্সপ্রেস ট্রেনটি কিছু স্টেশনে বিরতি রাখে, সেই স্টেশনের তালিকা উপরে দেওয়া হয়েছে।
প্রশ্নঃ টিকিট কিভাবে বুক করতে হয়?
উত্তরঃ টিকিট বুক করতে আপনি বাংলাদেশ রেলওয়ে ওয়েবসাইট বা স্থানীয় টিকিট অফিস ব্যবহার করতে পারেন।

শেষ কথাঃ সিরাজগঞ্জ টু ঢাকা ট্রেনের সময়সূচী

বাংলাদেশের ট্রেন সবচেয়ে নিরাপদ, তবে এখানে আপনাকে অনেক বেশি সতর্ক থাকতে হবে, তবে অধিক গুরুত্বপূর্ণ হলো যে আপনার যেকোনো ধরনের ব্যাগ অথবা পাস সাবধানে রাখতে হবে। এই আর্টিকেলে আমরা টিকিটের মূল্য সহ সিরাজগঞ্জ টু ঢাকা ট্রেনের সময়সূচী এবং ভাড়ার সম্পর্কে যে তথ্য দিয়েছি, তা বাংলাদেশ রেলওয়ের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটের ওপর ভিত্তি করে।
আমরা চেষ্টা করেছি আপনার ভ্রমণ সহযোগী সকল তথ্য তুলে ধরার। এসব তথ্য বিবেচনা করে আপনি নিরাপদ ভ্রমণ নিশ্চিত করতে পারবেন বলে আমরা মনে করছি। যদি আপনি আরো কোন তথ্য জানতে চান অথবা কোন মন্তব্য থাকতে চান, তবে দয়া করে নিচের কমেন্ট বক্সে আপনার প্রশ্ন বা মন্তব্য করুন। আমাদের সাইটে ভিজিট করার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

অর্ডিনারি আইটির নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url